অপরাধ জাতীয় তথ্যপ্রযুক্তি লিড নিউজ সারাদেশ

লাইসেন্স বিহীন মইটিভি সম্প্রচার || প্রকৃত মালিক বঞ্চিত; প্রধানমন্ত্রী’র হস্তক্ষেপ কামনা

Please follow and like us:

নিউজ ডেস্ক🚏
সম্প্রতি বেসরকারী সেটেলাইট টেলিভিশন মাই টিভি প্রতিষ্ঠানের মালিকানা দাবী করছেন বিলকিস জাহান নামের একজন ভদ্রমহিলা। দীর্ঘদিন পর্যন্ত বিভিন্ন মাধ্যমে তিনি দাবী করে আসছেন।

তিনি বলছেন,মাই টিভি লিঃ নামের প্রতিষ্ঠানে নাসির উদ্দিন সাথী কর্মরত ছিলেন। বিলকিস জাহানের স্বামী হটাৎ মারা যাওয়ার পর তিনিও অসুস্থ হয়ে পরলে নাসির উদ্দিন সাথী জাল জালিয়াতী করে মাই টিভি লিঃ প্রতিষ্ঠানকে নিজের নামে  লিমিটেড শব্দ বাদ দিয়ে শুধু মাই টিভি নামে চালিয়ে যাচ্ছেন।

তবে এব্যপারে মাই টিভি’র চেয়ারম্যান দাবীদার নাসির উদ্দিন সাথীর কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

মাই টিভি লিঃ ভাইস-চেয়ারম্যান পরিচয় দিয়ে এনামুল হক খান নামের একজন তার সোস্যাল মিডিয়া ফেসবুকে এ্যাকাউন্ট Anamul Hoque khan থেকে লেখাটি নিচে হুব হুব তুলে ধরা হলো:

আমি জানিনা, বললেন অতিরিক্ত সচিব (সম্প্রচার) তথ্যমন্ত্রণালয়ঃ
চলছে অনুমোদন বিহীন mytv(লিমিটেড শব্দটা বাদ দিয়ে শুধু মাত্র ছোট অক্ষরে mytv লিখে লগো চেইঞ্জ করে)
বাংলাদেশ এর ইতিহাসে কলংকজনক অধ্যায় এর শুভ সুচণা মনে হচ্ছে।

মিডিয়া কে আমরা জাতীর বিবেক বলে থাকি।এই মিডিয়াই সকল দুর্নীতি জনসমক্ষে তুলে ধরে।বের করে নিয়ে আসে খবরের অন্তরালের খবর।কিন্তু একি দেখছি আমি??? ভুত তাড়াতে বাড়ীতে সরষে রাখা হয়, আর সেই সরষেতেই ভুত??

বাংলাদেশ এ টেলিভিশন চ্যানেল অনুমোদন করেন শুধু মাত্র মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা উনার একক সিদ্ধান্তে। আর বাংলাদেশ এ মাইটিভি লিঃ নামে একটাই অনুমোদন করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। যা আমাদের এমডি জনাব বিলকিস জাহান এর নামে।এটাই হলো আমাদের মাইটিভি লিঃ। তাহলে এই mytv কে অনুমোদন দিলো?? তথ্যমন্ত্রণালয় এর অতিরিক্ত সচিব(সম্প্রচার), বলছেন তথ্যমন্ত্রণালয় থেকে নাসিরুদ্দিন কে mytv এর লাইসেন্স দিয়েছেন।আমি তখন প্রশ্ন করেছিলাম, এই লাইসেন্স দেওয়ার ক্ষমতা তো তথ্যমন্ত্রণালয় এর নাই।

যদি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন না করেন।তাহলে আপনারা কিভাবে দিলেন?? উনি বললেন, আমি নুতন। তিন মাস হলো এসেছি।আমি জানিনা।আমি সরকার এর সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলতে চাই, এই সরকার জননেত্রীর সরকার। আপনারা এমন কোন কাজ করবেন না, জননেত্রীর সরকারের উপর আংগুল উচু করে দুর্নীতিবাজ বলতে পারে। এখন ও সময় আছে, তদন্ত করে সত্যকে প্রতিষ্টা করুণ।মিথ্যা কে প্রতষ্ঠিত করতে যাবেন না।আগামী দুই দিন এর মাঝে বিষয়টি নিষ্পত্তি করুন। নেত্রী যদি এতো বড় একটা দুর্নীতির কথা জানতে পারে, তাহলে তিনি কিন্তু ছাড় দিবেন না।সে যেই হউক।
এনামুল হক খান
ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান
মাইটিভি লিঃ।

সূত্র→{স্বদেশ বাণী ২৪ ডট কম}

News Desk
আমরা স্বাধীনতার পক্ষে
http://www.shaplanewsbd.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *